আলথুসার

লেখক: মাসরুর আরেফিন

বিষয়: বিবিধ

৫২০.০০ টাকা ২০% ছাড় ৬৫০.০০ টাকা

রাতে ঘুম না আসায় আবার মাসরুর আরেফিনের উপন্যাস আলথুসার পড়লাম। প্রথম পাঠে মুগ্ধ হয়েছিলাম কাহিনির ঠাসবুনন আর কুশলী বর্ণনাভঙ্গির জন্য। এবার অবাক হলাম ভাষা ব্যবহারে তাঁর অনন্য দক্ষতা দেখে। এমন জটিল অথচ প্রাঞ্জল ভাষা যাঁর আয়ত্তে, তিনি ভাষার কারিগর। এই ভাষা কোথাও থামে না, ছুটে চলে বল্গাহারা ঘোড়ার মতো আপন বেগে। এই ভাষার সঙ্গে তুলনীয় টমাস পিনচনের লেখা, যিনি ২০ বছর আগে নোবেল প্রাইজ পাবেন বলা হয়েছিল। কাহিনির ঠাসবুনন, বর্ণনাভঙ্গি আর ভাষার ব্যবহারে মাসরুর আরেফিনকে বলা যায় এই মুহূর্তে বাংলা ভাষার সবচেয়ে শক্তিশালী কথাসাহিত্যিক।

পছন্দের তালিকায় রাখুন

বইয়ের বিবরণ

বিখ্যাত মার্ক্সবাদী ফরাসি দার্শনিক লুই আলথুসার ‘দমন-পীড়নমূলক রাষ্ট্রযন্ত্র’ তত্ত্বের জনক, যিনি ১৯৮০ সালে স্ত্রীকে খুন করার আগে লন্ডনের এক বাসায় স্লিপওয়াক করতেন। ভাবা হয়, এই স্লিপওয়াকই তাঁর স্ত্রী হত্যার কারণ। আলথুসারের সেই বাসা দেখতে এ উপন্যাসের নায়ক হাজির হয় লন্ডনের অক্সফোর্ড স্ট্রিটে, সময়টা এপ্রিল ২০১৯। লন্ডন শহরজুড়ে তখন চলছে বড় পরিবেশবাদী দল ‘এক্সটিংকশন রেবেলিয়ন’-এর তীব্র আন্দোলন। আন্দোলনকারীদের প্রতীকী ‘পিংক বোট’ শহরের রাস্তায়, তাদের মূল স্লোগান—‘টেল দ্য ট্রুথ’। কী সেই ট্রুথ? তারা বলছে পরিবেশ ধ্বংসকারী এই নিপীড়নবাদী দুনিয়া বদলাতেই হবে, নয়তো এ গ্রহ নিশ্চিহ্ন হবে আর মাত্র বারো বছরেই। নায়ক একাত্মবোধ করছে এদের আন্দোলনের ইস্যুর সঙ্গে, সে বুঝতে পারছে তার নিজের ভেতরেও আছে দূর অতীতের সবুজ-শ্যামল বরিশালের জন্য, প্রিয় কবি জীবনানন্দ দাশের এখনকার মৃতপ্রায় ধানসিড়ি নদীটার জন্য তীব্র হাহাকার। নিজের সঙ্গে এই বোঝাবুঝি থেকেই নায়ক এক ভয়ংকর সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলল—পৃথিবীর ভালোর জন্য কাজ করবে সে, জীবনানন্দ দাশের রূপসী বাংলাকে ফিরিয়ে আনার জন্য লড়বে। কিন্তু বিরুদ্ধপক্ষ কেন তাকে করতে দেবে সেই লড়াই? অবিশ্বাস্য এক ঘূর্ণির মধ্যে পড়ে নায়ক এবার বুঝতে চাইছে পৃথিবী বদলানো বিষয়ে আলথুসার কী বলতে চেয়েছিলেন এবং ভায়োলেন্স কেন ও কতটা মিলেমিশে আছে আমাদের সবার পৃথিবীর ভালো করার অস্বচ্ছ স্বপ্নগুলোর ভেতরে।

আলোর উৎস কিংবা ডিভাইসের কারণে বইয়ের প্রকৃত রং কিংবা পরিধি ভিন্ন হতে পারে।

মাসরুর আরেফিন

জন্ম ৯ অক্টোবর ১৯৬৯। পড়াশোনা বরিশাল ক্যাডেট কলেজ; ভারতের আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়; ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটি, মেলবোর্নে। প্রথম কাব্যগ্রন্থ ঈশ্বরদী, মেয়র ও মিউলের গল্প (২০০১) প্রথম আলোর সে বছরের নির্বাচিত বইয়ের অন্তভু‌র্ক্ত হয়েছিল। তাঁর অনুবাদে ফ্রানৎস কাফকা গল্পসমগ্র (২০১৩) ব্র্যাক ব্যাংক-সমকাল সাহিত্য পুরস্কার ও বাংলা একাডেমি-চিত্তরঞ্জন সাহা সেরা প্রকাশনা পুরস্কার লাভ করে। ২০১৫ সালে বেরোয় তাঁর হোমারের ইলিয়াড এবং সমাদৃত হয় পাঠকমহলে। তিনি দুই কন্যার জনক। আগস্ট আবছায়া তাঁর প্রথম উপন্যাস।

এই লেখকের আরও বই
এই বিষয়ে আরও বই
আলোচনা ও রেটিং
০(০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
আলোচনা/মন্তব্য লিখুন :

আলোচনা/মন্তব্যের জন্য লগ ইন করুন