দ্য ব্ল্যাক অবিলিস্ক

লেখক: এরিক মারিয়া রেমার্ক

বিষয়: অনুবাদ

১৮০.৪০ টাকা ১৮% ছাড় ২২০.০০ টাকা

দ্য ব্ল্যাক অবিলিস্ক বইয়ে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পটভূমিতে তুলে ধরা হয়েছে জার্মানির তখনকার মানুষের অসহায়ত্বের কথা, যুদ্ধের পটভূমিতে তাদের প্রেম ও ভালোবাসার কথা। তাদের মানসিক অসহায়ত্বের বিবরণ পাঠ করতে গিয়ে পাঠক মনের অজান্তেই ঢুকে পড়বেন কাহিনির গভীরে। প্রতি মুহূর্তে চোখের সামনে ভেসে উঠবে যুদ্ধের বীভৎসতার চেহারা। দ্য ব্ল্যাক অবিলিস্ক-এর চরিত্রগুলোকে মনে হবে আমাদের অতি চেনাজানা সব নরনারী বলে। এ উপন্যাস একবার পড়তে শুরু করলে শেষ না করে পারা যাবে না। এ বইয়ের সেই উক্তি, যেখানে বলা হয়েছে ‘একজন মাত্র মানুষের মৃত্যু বিয়োগান্ত কিছু, কিন্তু লাখ লাখ মানষের মৃত্যু পরিসংখ্যান মাত্র’—চিরস্মরণীয় হয়ে আছে। 

পছন্দের তালিকায় রাখুন

বইয়ের বিবরণ

অনেক দিন পর রুডল্ফ আর ইসাবেলের দেখা। আজ মানসিক হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাচ্ছে ইসাবেল। রুডল্ফের বয়ানে পড়া যাক তাদের কথোপকথন: আবার নামটা উচ্চারণ করলাম আমি, ‘ইসাবেল।’ ঘাড় ফিরিয়ে তাকাল আমার দিকে, ‘আপনি কি কিছু বলছেন?’ ‘ইসাবেল! তুমি কি আমাকে চিনতে পারছ না? আমি...আমি রুডল্ফ।’ ‘রু-ড-ল্-ফ? রুডল্ফ কে?’ ইসাবেলকে হতভম্ব দেখাচ্ছে। বললাম, ‘আপনার সঙ্গে বেশ অনেক দিন কথা হয়েছে আমার। আমরা অনেক বিষয় নিয়ে গল্প করেছি। আপনার কি কিছুই মনে নেই?’ ‘অনেক দিন?  কিন্তু...আমার তো একটা কথাও মনে পড়ে না!’ আমি বোবা হয়ে বসে থাকলাম। ইসাবেল জিজ্ঞেস করল, ‘আপনি ইসাবেল বলছিলেন কাকে? কাকে ডাকছিলেন?’ আমি ঢোঁক গিলে বললাম, ‘না, কাউকে ডাকছিলাম না। ওই নামে একজনকে চিনতাম আর কি। চিনতাম মানে, সামান্য পরিচয় ছিল।’ ‘কে সে? এখানে ছিল বুঝি? তারপর চলে গেছে?’ মাথা নাড়লাম আমি, ‘না, এখানে সে ছিল না। চলেও যায়নি।’ ‘তাহলে কী হলো তার?’ ইসাবেল খুব বিস্মিত হয়েছে। ‘সে একদিন মারা গেল।’ ‘ইশ্। শুনে সত্যি খুব দুঃখ পেলাম।’ ‘না, দুঃখ পাওয়ার তেমন কিছু নেই,’ বললাম আমি, ‘কারণ সে জানতেও পারেনি যে সে মারা গেছে।’ 

আলোর উৎস কিংবা ডিভাইসের কারণে বইয়ের প্রকৃত রং কিংবা পরিধি ভিন্ন হতে পারে।

এরিক মারিয়া রেমার্ক

জন্ম ১৮৯৮ সালে, জার্মানিতে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। আহত হন। ওই যুদ্ধের অভিজ্ঞতায় লেখা উপন্যাস অল কোয়ায়েট অন দ্য ওয়েস্টার্ন ফ্রন্ট তাঁকে বিপুল খ্যাতি এনে দেয়। জার্মানিতে হিটলারের নেতৃত্বে নাৎসিরা ক্ষমতাসীন হলে তিনি দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান। তবে পালিয়েও রেহাই পাননি। পুড়িয়ে ছাই করা হয় তাঁর বই। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূচনায় তিনি পালিয়ে আশ্রয় নেন আমেরিকায়। লেখেন দ্য ব্ল্যাক অবিলিস্ক, ফ্লটসাম, আর্ক অব ট্রায়াম্ফ, দ্য নাইট ইন লিসবন। আরেক বিখ্যাত বই থ্রি কমরেডস। সুইজারল্যান্ডে তিনি মারা যান ১৯৭০-এ।

এই লেখকের আরও বই
এই বিষয়ে আরও বই
আলোচনা ও রেটিং
০(০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
আলোচনা/মন্তব্য লিখুন :

আলোচনা/মন্তব্যের জন্য লগ ইন করুন