বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহল : অবরুদ্ধ ৬৮ বছর

লেখক: মোহাম্মদ গোলাম রববানী

বিষয়: বাংলাদেশ

২৮৮.০০ টাকা ২০% ছাড় ৩৬০.০০ টাকা

বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহলের বাসিন্দাদের ৬৮ বছরের রাষ্ট্রহীন জীবনযাপনের এক প্রামাণ্য দলিল এই গ্রন্থ। ছিটমহল সমস্যাটির ঐতিহাসিক পটভূমি তুলে ধরার পাশাপাশি এতে ভারত-পাকিস্তান ও বাংলাদেশ-ভারত দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের চুলচেরা বিশ্লেষণ করা হয়েছে। সর্বশেষ ছিটমহল বিনিময়ের প্রক্রিয়া ও বিনিময়-পরবর্তী পরিস্থিতি সম্পর্কে একটি মনোযোগী ও অন্তদৃ‌র্ষ্টিসম্পন্ন পর্যবেক্ষণ গ্রন্থটিকে সম্পূর্ণতা দিয়েছে। প্রায় দেড় দশকের একনিষ্ঠ গবেষণা ও মাঠপর্যায়ে সংগৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে লেখক এ বই রচনা করেছেন। 

পছন্দের তালিকায় রাখুন

বইয়ের বিবরণ

১৯৪৭ সালে সমগ্র ভারতবর্ষের মানুষ ব্রিটিশের ঔপনিবেশিক শাসন থেকে মুক্তি লাভ করে। সৃষ্টি হয় ভারত ও পাকিস্তান নামক দুটি রাষ্ট্রের। কিন্তু সীমানা নির্ধারণ প্রক্রিয়ার ভুল বা খামখেয়ালিতে দুটি দেশের অর্ধলক্ষের মতো মানুষ ১৬২টি বিচ্ছিন্ন ভূখণ্ডে আটকা পড়ে যায়। ছিটমহল নামে পরিচিত এই ভূখণ্ডগুলোতে বছরের পর বছর তাদের একরকম বন্দিজীবন যাপন করতে হয়। ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই মধ্যরাতে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ছিটমহল বিনিময় কার্যকর হওয়ার মাধ্যমে অবসান ঘটে তাদের দীর্ঘ সাত দশকের অবরুদ্ধ ও নাগরিক অধিকারবঞ্চিত জীবনের। তবে ছিটমহল বিলুপ্ত হলেও সাবেক ছিটমহলবাসীর অনেক পুঞ্জীভূত সমস্যার সমাধান এখনো হয়নি। অন্যদিকে ছিটমহল বিনিময়ের প্রক্রিয়াও নতুন করে কিছু সমস্যার সৃষ্টি করেছে। বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহলে বসবাসকারী মানুষের জীবন-জীবিকার সমস্যা, তাদের অধিকারহীনতা ও অধিকার অর্জনের সংগ্রাম, ছিটমহল বিনিময়ের প্রক্রিয়া এবং বিনিময়-পরবর্তী পরিস্থিতি সম্পর্কে একটি পর্যবেক্ষণমূলক গবেষণার ফসল এই গ্রন্থ। এতে ভুক্তভোগীদের বয়ানে তাদের অভিজ্ঞতার কথা হুবহু তুলে ধরা হয়েছে। সেই সঙ্গে মাঠপর্যায়ে গবেষণার মাধ্যমে সংগৃহীত ছিটমহলবাসীর জীবনচিত্রও পাওয়া যাবে এ বইয়ে। ঐতিহাসিক তত্ত্ব-উপাত্ত সংগ্রহ, উপস্থাপন ও তার ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণে লেখকের দক্ষতার পাশাপাশি তাঁর অন্তর্দৃষ্টিসম্পন্ন পর্যবেক্ষণ গ্রন্থটিকে অনন্য মর্যাদা দিয়েছে।

আলোর উৎস কিংবা ডিভাইসের কারণে বইয়ের প্রকৃত রং কিংবা পরিধি ভিন্ন হতে পারে।

এই বিষয়ে আরও বই
আলোচনা ও রেটিং
০(০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
আলোচনা/মন্তব্য লিখুন :

আলোচনা/মন্তব্যের জন্য লগ ইন করুন