২১০.৬০ টাকা ২২% ছাড় ২৭০.০০ টাকা

ইংরেজরা নিজেদের ইংরেজ নামে ডাকত না। এই নাম এসেছে পতু‌র্গিজদের কাছ থেকে। কাচের বাসন ভাঙলে ঠুন করে শব্দ হয়। সেখান থেকে ঠুনকো। তেলে ফোড়ন দিলে ছ্যাৎ করে। তাই হঠাৎ রেগে গেলে বলে ছ্যাৎ করে ওঠা। আমাদের চেনা সব শব্দের এমন মজার গল্প আর ইতিহাস নিয়ে এই বই।

 

 

পছন্দের তালিকায় রাখুন

বইয়ের বিবরণ

একদা মাছেরও মাংস হতো। খামখেয়ালির মধ্যে একটা আরবি, আরেকটা ফারসি শব্দ। জাঁদরেল কি আসলে জেনারেল? দীর্ঘদিন ব্যবহারে চারপাশের আরও সব শব্দের ধাক্কায় শব্দের আদি অর্থ পাল্টে যায়। কোনো কোনো শব্দের অর্থ পাল্টে হয়ে যায় একেবারে উল্টো। কিছু শব্দ আমাদের ভাষায় কোথা থেকে এল, তার হদিস খুঁজে পাওয়া যায় না। এ রকম কত গল্প আর ইতিহাস শব্দের মধ্যে লুকিয়ে আছে! শব্দের অর্থ কখনো জটিল, কখনো রোমাঞ্চকর। শব্দের সঙ্গে জুড়ে আছে ইতিহাস। আমাদের খুব চেনা, প্রতিদিন আমাদের মুখে মুখে ফেরে এ রকম কিছু শব্দের মজার গল্প নিয়ে এ বই।  
 

আলোর উৎস কিংবা ডিভাইসের কারণে বইয়ের প্রকৃত রং কিংবা পরিধি ভিন্ন হতে পারে।

ফরহাদ খান

জন্ম ১৯৪৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর, কুষ্টিয়ায়। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ থেকে বিএ (অনার্স) ও এমএ করেন। ১৯৭৩ সালে বাংলা একাডেমিতে যোগ দেন। একাডেমির ভাষা-সাহিত্য, সংস্কৃতি ও পত্রিকা বিভাগের পরিচালক ছিলেন। ছিলেন টেলিভিশন ও বেতার ব্যক্তিত্ব। প্রকাশিত গ্রন্েথর মধ্যে রয়েছে প্রতীচ্য পুরাণ, শব্দের চালচিত্র, বাংলা শব্দের উৎস অভিধান, চিত্র ও বিচিত্র, হারিয়ে যাওয়া হরফের কাহিনি, বাঙালির বিবিধ বিলাস, নীল বিদ্রোহ (যৌথ অনুবাদ), ব্যারন মুনশাউজেনের রোমাঞ্চকর অভিযান, গল্প শুধু গল্প নয় (শিশুতোষ গল্প)। ‘বাংলা একাডেমি ছোটদের অভিধান’সহ কয়েকটি বই সম্পাদনায় যুক্ত ছিলেন। প্রবন্ধ সাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ‘সাহিত্যিক মোহম্মদ বরকতুল্লাহ্‌ প্রবন্ধ সাহিত্য পুরস্কার’ ২০১৯ পান তিনি। মৃত্যু ১ অক্টোবর ২০২১।

এই লেখকের আরও বই
এই বিষয়ে আরও বই
আলোচনা ও রেটিং
০(০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
আলোচনা/মন্তব্য লিখুন :

আলোচনা/মন্তব্যের জন্য লগ ইন করুন