বইয়ের বিবরণ

নিহান বুঝতে পারলো ভয়ঙ্কর এরিয়া৫১-এর ভেতরে বন্দি হয়ে গেছে সে। চাকরি করতে এসে পড়ে গেছে গভীর এক চক্রান্তের মধ্যে! কী আছে এমআর১৩ ক্যাবিনেটের অন্তরালে? বিপজ্জনক কোনো সত্য?...তাহলে কি এ্যান্ড্রোমিডা গ্যালাক্সি থেকে পৃথিবীতে এসেছিল কেউ? তারা তবে কোথায়?

ক্যাপ্টেন পিটের ভয়ানক কিছু আবিষ্কার গোটা পৃথিবীকে জ্বালিয়ে দেবে দাউ দাউ করে। হাত বাড়ালো অসাধারণ সুন্দরি রোবট কন্যা ট্রিপি। নিহান জানে মেয়েটাই ওকে এবং গোটা দুনিয়াকে বাঁচাতে পারে। কিন্তু সেজন্যে এরিয়া ৫১-এর মূল সিস্টেম স্পাইডার হেড’কে হ্যাক করতে হবে।

অসম্ভব একটি কাজ, মৃত্যুর ঝুঁকি আছে শতভাগ, মাশুল গুনতে হবে গোটা দুনিয়াকেও। তবুও শেষ চেষ্টা করতে উদ্যত নিহান।

আলোর উৎস কিংবা ডিভাইসের কারণে বইয়ের প্রকৃত রং কিংবা পরিধি ভিন্ন হতে পারে।

এই বিষয়ে আরও বই
আলোচনা ও রেটিং
০(০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
আলোচনা/মন্তব্য লিখুন :

আলোচনা/মন্তব্যের জন্য লগ ইন করুন