বইয়ের বিবরণ

বই পরিচিতি:
সত্তর বছর পরের ঘটনা। হ্যালুসিনেশনের জন্য দায়ী জিনকে সনাক্ত করা গেছে। নাম দেয়া হয়েছে ‘হ্যালু-জিন’। হ্যালু-জিন পাল্টে দিয়েছে মানুষের চিন্তার জগৎ ও অনুভবের দুনিয়া! জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের মাধ্যমে মানুষ এমনভাবে পৃথিবীতে আসছে যেন তারা মুহুর্মুহু পছন্দসই হ্যালুসিনেশনে আক্রান্ত হতে পারে! ফলে মানুষের চিন্তায় ও অনুভবে ঘটছে অদ্ভুতুড়ে সব ঘটনা! সেসব নিয়েই কল্পগল্প ‘হ্যালু-জিন’। এমন আটটি সাই-ফাই গল্পের সংকলন এই বই। বইটি আকর্ষণীয় বর্ণনাশৈলীতে আপনাদের সামনে উন্মুক্ত করবে কল্পনার অবারিত প্রান্তর!

আলোর উৎস কিংবা ডিভাইসের কারণে বইয়ের প্রকৃত রং কিংবা পরিধি ভিন্ন হতে পারে।

আসিফ মেহ্‌দী

আসিফ মেহ্‌দী। পড়ালেখা বুয়েটে। পেশা সরকারি চাকরি, কিন্তু নেশা লেখালেখি। দেশসেরা দুই ফান ম্যাগাজিন উন্মাদ ও ‘রস+আলো’তে লেখার সুবাদে আসিফ মেহ্‌দী পাঠকদের কাছে সুপরিচিত। তাঁর প্রকাশিত প্রতিটি বই পেয়েছে পাঠকপ্রিয়তা, উঠে এসেছে সর্বাধিক বিক্রীত বইয়ের তালিকায়। তাঁর প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ৩০।

এই লেখকের আরও বই
এই বিষয়ে আরও বই
আলোচনা ও রেটিং
০(০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
আলোচনা/মন্তব্য লিখুন :

আলোচনা/মন্তব্যের জন্য লগ ইন করুন