টিকটিকি থেকে ডাইনোসর

লেখক: রেজাউর রহমান

বিষয়: বিবিধ, গণিত, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

১৩১.৪০ টাকা ২৭% ছাড় ১৮০.০০ টাকা

টিকটিকি আমরা হরহামেশাই দেখি। লম্বায় এগুলো এক থেকে দুই ইঞ্চি। অন্যদিকে ডাইনোসর দৈর্ঘে্য ৮০ থেকে ৯০ ফুট। এদের ঘিরে পৃথিবীতে ছড়িয়ে আছে নানা কুসংস্কার। অলীক সব উপাখ্যান। এমনিতেই সরীসৃপ সম্পর্কে আমরা যতটুকু জানি, অজানা তার চেয়ে অনেক বেশি। আর ডাইনোসর সম্পর্কে আমাদের জ্ঞান একেবারেই সীমিত। এই প্রাচীন প্রাণীগুলো পৃথিবী থেকে সদলবলে বিলুপ্ত হয়ে গেছে সাড়ে ছয় শ কোটি বছর আগে। কিন্তু কেন? এসব নানা কৌতূহল ও প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে এই গ্রন্েথ। 

সংগ্রহে নেই পছন্দের তালিকায় রাখুন

বইয়ের বিবরণ

টিকটিকি আমরা হরহামেশাই দেখি। লম্বায় এগুলো এক থেকে দুই ইঞ্চি। অন্যদিকে ‘ভয়াবহ টিকটিকি’ দৈর্ঘে্য ৮০ থেকে ৯০ ফুট। ওজনে ৪০-৫০ টন। এদের কোনোটার খাবার ছিল দিনে ৪০০ কেজি। দ্বিতীয় দলের প্রাণী ডাইনোসর নামে পরিচিত। শ্রেণী পরিচয়ে দুটোই সরীসৃপ। এ দলে আরও রয়েছে তক্ষক, গিরগিটি, কচ্ছপ, সাপ ও কুমির। এদের দেহাকৃতি বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত ও বর্ণাঢ্য। আচার-আচরণ আরও বিচিত্র। কখনো মৃত্যুভয়ালও। এদের ঘিরে পৃথিবীতে ছড়িয়ে আছে নানা কুসংস্কার। অলীক সব উপাখ্যান। সব মিলিয়ে সরীসৃপ সম্পর্কে আমরা যতটুকু জানি, অজানা তার চেয়ে অনেক বেশি। আর ডাইনোসর সম্পর্কে আমাদের জ্ঞান একেবারেই সীমিত। এই প্রাচীন প্রাণীগুলো পৃথিবী থেকে সদলবলে বিলুপ্ত হয়ে গেছে সাড়ে ছয় শ কোটি বছর আগে। কিন্তু কেন? এসব নানা কৌতূহল ও প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে এই গ্রন্েথ। 

আলোর উৎস কিংবা ডিভাইসের কারণে বইয়ের প্রকৃত রং কিংবা পরিধি ভিন্ন হতে পারে।

রেজাউর রহমান

জন্ম ১৯৪৪, ঢাকা। লেখালেখি শুরু স্কুলজীবনে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএসসি। ১৯৭৯ সালে চেক বিজ্ঞান অ্যাকাডেমি, প্রাগ থেকে কীটতত্ত্বে পিএইচডি। সরকারি ডিগ্রি কলেজে শিক্ষকতার মধ্য দিয়ে পেশাজীবনের শুরু। বাংলাদেশ পরমাণুশক্তি কমিশনে বিজ্ঞান-গবেষক ছিলেন। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেছেন। উল্লেখযোগ্য বই: উপন্যাস: ছায়ারজনী (২০১৫), সাদা বরফ কালো বৃক্ষ (২০১৩), ফিরে আসা ফিরে যাওয়া (২০১২), অন্ধকারে নয় মাস (২০১১), বক হত্যার বিচার চাই (১৯৯০), ছোট শহরের ছোট কথা (১৯৬৫)। গল্পগ্রন্থ: যাত্রার শেষ সীমানা (২০১৪), স্ফুলিঙ্গের আভা (২০১৩), বয়োযবনিকা (২০১১), দেশান্তর (২০১০), মাঝরাতের ইস্টিশন (২০০৯), সবুজ বনের সবুজ টিয়ে (২০০৬), সেই কলস পেয়ে যাবেই (১৯৯৪), বাক্সবন্দী সব (১৯৮৭), অভয়ারণ্য খুঁজি (১৯৮৬)। শতাধিক বিজ্ঞান-প্রবন্ধের লেখক। স্নাতকোত্তর মানের পাঠ্যপুস্তকসহ ১৭টি জনপ্রিয় বিজ্ঞানগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে।

এই লেখকের আরও বই
এই বিষয়ে আরও বই
আলোচনা ও রেটিং
০(০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
আলোচনা/মন্তব্য লিখুন :

আলোচনা/মন্তব্যের জন্য লগ ইন করুন