জিম্বাবুয়ে বোবা পাথর সালানিনি

লেখক: মঈনুস সুলতান

বিষয়: ভ্রমণ ও প্রবাস, পুরস্কারপ্রাপ্ত

২৫৫.৫০ টাকা ২৭% ছাড় ৩৫০.০০ টাকা

লেখক জিম্বাবুয়েতে যান নজিরবিহীন নিপীড়নে মানুষের দুঃখ, সংঘাত ও মৃত্যু সরেজমিনে প্রত্যক্ষ করতে। তথ্য সংগ্রহের অভিযোগে তিনি বহিষ্কৃত হন। আবার বিপুল ঝুঁকি নিয়ে ফিরে যান, মেলামেশা করেন হরেক রকম মানুষের সঙ্গে। নিভৃতে নিজেকে প্রশ্ন করেন—হীরা ও স্বর্ণের বিপুল খনিজ সম্পদে সমৃদ্ধ দেশটি কেন তার চল্লিশ লাখ মানুষের আহার জোটাতে পরছে না? লেখকের সহজ ভাষা, অতুলনীয় রসবোধ আর মানুষের প্রকৃত সত্তা তুলে ধরার ক্ষমতা ভ্রমণগল্পগুলোকে আকর্ষণীয় করে তুলেছে। 

সংগ্রহে নেই পছন্দের তালিকায় রাখুন

বইয়ের বিবরণ

জিম্বাবুয়েতে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে লেখক পর্যবেক্ষণ করেন কাঠকয়লার অগ্নিবৃত্তে চিত্রিত ঢাল ও বল্লম নিয়ে বৃষ্টির প্রত্যাশায় দাঁড়িয়ে থাকা জিম্বাবুয়ের কজন কবিকে। সবুজাভ পাথরের মূর্তি নিয়ে সঙ্গোপনে এসে দাঁড়ান বাসস্টপে। বিউটি সেলুনে তাঁর সঙ্গে দেখা হয় দেশটির সাম্প্রতিক কালের আন্ডারগ্রাউন্ড লেখকদের সঙ্গে। কিছুদিন বাস করেন উৎখাত হওয়া শ্বেতাঙ্গ এক চাষির পোড়ো বাংলোয়। দেখা হয় বিলাতের মেয়ে ব্লসমের সঙ্গে, যে ফ্রেস্কো আঁকতে আঁকতে মাটোপস হিলে আত্মহননের কথা ভাবে। গাঁয়ের বিপন্ন কজন মানুষ তাম-তা-তাম ঢোলক বাদ্যের ভেতর হরিণের রক্তে মদ মিশিয়ে নালিশ জানাচ্ছে তাদের রাজাধিরাজের সমাধিতে। অনটনে অতীষ্ঠ ক্রিস্টিনা পাচার করে সম্পত্তি হারানো এক শ্বেতাঙ্গ লেখকের পাণ্ডুলিপি। অন্ধ মাকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ভিক্টোরিয়া জলপ্রপাতে নিয়ে আসার জন্য সে টাকা জমাচ্ছে। একটু আগেও পিয়ানো বাজিয়েছে সালানিনি। বিদায় জানাতে গিয়ে আসন্ন মৃত্যুর ছায়ায় লক্কা পায়রার মতো শরীর ঘুরিয়ে খোশমেজাজে গুনগুন করে গান গায় সে। এ বইয়ের মানুষগুলোকে পাঠক সহজে ভুলতে পারবেন না। 

আলোর উৎস কিংবা ডিভাইসের কারণে বইয়ের প্রকৃত রং কিংবা পরিধি ভিন্ন হতে পারে।

মঈনুস সুলতান

জন্ম ১৯৫৬ সালে, সিলেট জেলার ফুলবাড়ী গ্রামে। যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব ম্যাসাচুসেটস থেকে আন্তর্জাতিক শিক্ষা বিষয়ে পিএইচডি। খণ্ডকালীন অধ্যাপক ছিলেন ইউনিভার্সিটি অব ম্যাসাচুসেটস এবং স্কুল অব হিউম্যান সার্ভিসেস-এর। ইউনিভার্সিটি অব সাউথ আফ্রিকার ভিজিটিং স্কলার ছিলেন। শিক্ষকতা, গবেষণা ও কনসালট্যান্সির কাজে বহু দেশ ভ্রমণ করেছেন। বর্তমানে সিয়েরা লিওনে বাস করছেন। প্রথমা প্রকাশন থেকে বেরিয়েছে তাঁর আরও ছয়টি ভ্রমণগল্পের বই কাবুলের ক্যারাভান সরাই, জিম্বাবুয়ে: বোবা পাথর সালানিনি, নিকারাগুয়া: সমোটো ক্যানিয়নে গাবরিয়েলা, সোয়াজিল্যান্ড: রাজা প্রজা পর্যটক, ঈদের সোনালি ইগল ও আকাশরাজ্য । প্রথম আলো বর্ষসেরা বইয়ের পুরস্কার ও বাংলা একাডেমি পুরস্কার পেয়েছেন।

এই লেখকের আরও বই
এই বিষয়ে আরও বই
আলোচনা ও রেটিং
০(০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
আলোচনা/মন্তব্য লিখুন :

আলোচনা/মন্তব্যের জন্য লগ ইন করুন