নবাব সলিমুল্লাহ ও তাঁর সময়

লেখক: সৈয়দ আবুল মকসুদ

বিষয়: বইমেলা ২০২১, নির্বাচিত বই

৫০৭.০০ টাকা ২২% ছাড় ৬৫০.০০ টাকা

কুড়ি শতকে উপমহাদেশের অন্যতম শীর্ষ রাজনীতিবিদ, শিক্ষানুরাগী ও সমাজসংস্কারক নবাব সলিমুল্লাহর বর্ণাঢ্য জীবন ও জাতীয় জীবনে তাঁর ভূমিকা এবং সামাজিক ক্ষেত্রে তাঁর বিভিন্ন অবদানের কথা সবিস্তারে বলা হয়েছে এ বইয়ে। পাশাপাশি উঠে এসেছে তাঁর সময়ের বাংলার রাজনীতির তথ্যনির্ভর পর্যালোচনা।

পছন্দের তালিকায় রাখুন

বইয়ের বিবরণ

নবাব সলিমুল্লাহ কুড়ি শতকের অন্যতম শীর্ষ রাজনীতিবিদ, উপমহাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম রাজনৈতিক দল ‘অল ইন্ডিয়া মুসলিম লীগ’-এর প্রতিষ্ঠাতা। তাঁকে বলা হয় বাঙালি মুসলিম রাজনীতির জনক। তিনি অবহেলিত ও আত্মবিস্মৃত বাঙালি মুসলমানকে সর্বভারতীয় রাজনীতির মূলধারায় যুক্ত করেন। ইতিহাসের এক সন্ধিক্ষণে সলিমুল্লাহর রাজনৈতিক মঞ্চে আবির্ভাব। সেই সময়টির তথ্যনির্ভর ও বস্ত্তনিষ্ঠ পর্যালোচনা এই বই। পূর্ববঙ্গ তথা বর্তমান বাংলাদেশে শিক্ষা বিস্তারে তাঁর ভূমিকা তুলনাহীন। নবাব বাহাদুরের ব্যক্তিগত জীবনও বর্ণময়। এ বইতে আনুপুঙ্খিক গবেষণার মাধ্যমে স্যার সলিমুল্লাহকে সামগ্রিকভাবে তুলে ধরা হয়েছে।

আলোর উৎস কিংবা ডিভাইসের কারণে বইয়ের প্রকৃত রং কিংবা পরিধি ভিন্ন হতে পারে।

সৈয়দ আবুল মকসুদ

জন্ম মানিকগঞ্জে, ১৯৪৬ সালে। বাংলাদেশের বিশিষ্ট লেখক-গবেষক, জনপ্রিয় কলামিস্ট, পরিবেশ ও সামাজিক আন্দোলনে নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিত্ব ও মানবাধিকার কর্মী। তাঁর উল্লেখযোগ্য গ্রন্েথর মধ্যে রয়েছে: কবিতা: বিকেলবেলা, দারা শিকোহ ও অন্যান্য কবিতা ; প্রবন্ধ: যুদ্ধ ও মানুষের মূর্খতা, বাঙালির সাংস্কৃতিক উত্তরাধিকার, পূর্ববঙ্গে রবীন্দ্রনাথ, রবীন্দ্রনাথের ধর্মতত্ত্ব ও দর্শন, ঢাকায় বুদ্ধদেব বসু প্রভৃতি; জীবনী: সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর জীবন ও সাহিত্য, মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, গোবিন্দচন্দ্র দাসের ঘর-গেরস্থালি ; ভ্রমণকাহিনি: জার্মানীর জার্নাল, পারস্যের পত্রাবলি। বাংলাদেশে গান্ধী-গবেষণার পথিকৃৎ। তাঁর গান্ধী-বিষয়ক গ্রন্থ: Gandhi, Nehru and Noakhali ও Gandhi Camp। চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত দৈনিক সুপ্রভাত বাংলাদেশ-এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক। বাংলা একাডেমি পুরস্কার, ঋষিজ পুরস্কারসহ বিভিন্ন পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। মৃত্যু: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

এই লেখকের আরও বই
এই বিষয়ে আরও বই
আলোচনা ও রেটিং
৫(১)
  • (১)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
  • (০)
আলোচনা/মন্তব্য লিখুন :

আলোচনা/মন্তব্যের জন্য লগ ইন করুন

Farhana Binti Amin

২৮ Feb, ২০২৩ - ১১:৪৩ PM

একটি পুত্রসন্তানের আগমনে সারা ঢাকাশহর, আহসান মঞ্জিল আনন্দে উচ্ছাসে মাতোয়ারা হয়ে উঠেছিলো।পিতা দিনিলিপিতে লিখেছিলেন "আল্লাহ আমাকে একটা মুক্তা দান করেছেন…"।কে ছিলেন সেদিনে সেই মুক্তাসম সন্তান? নবাব সলিমুল্লাহ। যিনি নবাব আহসানউল্লাহর পঞ্চম সন্তান। শৈশব থেকেই তিনি ছিলেন বিনয়ী, নিরহঙ্কার, মানবহৈতিষী চরিত্রের।ঢাকার আজিমপুরে আজো তার প্রতিষ্ঠিত এতিমখানা চালু রয়েছে।বতমানে শিক্ষাব্যবস্হায় যে আধুনিক রূপ,প্রাণবন্ত রাজধানী সভ্যতার প্রতীক তার পিছনে রয়েছে নবাব সলিমুল্লাহ 'র কর্মপ্রচেষ্টা ।বাংলাদেশের সেরা দুই বিদ্যাপীঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় তাঁর অবদান এক কথায় অনবদ্য। বাঙালী জাতির সঙ্কটে এক যুগসন্ধিক্ষণে তাঁর রাজনৈতিক অঙ্গনে প্রবেশ।বঙ্গভঙ্গের পর 'পূর্ববঙ্গ ও আসাম প্রদেশ ' আলাদা করা হয়,হিন্দু জাতীয়তাবাদী নেতৃত্ব পৃথক স্বার্থে ধাবিত হয়।তখন পূর্ববঙ্গের সংখ্যাগরিষ্ঠতা মুসলিম নেতৃত্বের শূণ্যতা পূরনে এগিয়ে আসেন তিনি।'অল ইন্ডিয়া মুসলিম লীগ প্রতিষ্ঠা করেন। বইটি দশটি অধ্যায়ে বিবৃত হয়েছে।নবাব সলিমুল্লাহ'র ব্যক্তিগত জীবনও ঘটনাবহুল।কিন্তু তাদের নিয়ে যতোটা আলোচনা হওয়া উচিত ছিলো, তার সিকিভাগও হয়নি।এর একটা কারণ হতে পারে উর্দুভাষী নবান পরিবার ও জমিদারী শাসকশ্রেণী'র অনেককিছু প্রকাশে জটিলতা।অন্য কারনটি দুঃখজনক,বাঙালির আত্মবিস্মৃত। বাঙালি মধ্যবিত্ত শ্রেণির বিকাশে তাঁর রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ভূমিকা অন্যমাত্রায় নিয়ে গেছে।১৯৮০র দশকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রবীণ শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে সাপ্তাহিকের সাংবাদিককে বলছিলেন,বাংলাদেশের মানুষের জীবনে নবাব সলিমুল্লাহ ও তার পরিবারের কোন অবদান নাই।তখন সেখানে একজন সিভিল সার্ভেন্ট বলেছিলেন বাঙালির জীবনে নবাব সলিমুল্লাহর অবদান না থাকলে আপনি আজকে কেরানীগঞ্জে একজন সাধারন শিক্ষকের চাকুরী করতে হতো।মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ ও মুহাম্মদ এনামুল হকের মতো ব্যক্তিদের প্রথম জীবনে অনেক কষ্টে স্কুলে শিক্ষকতা করেছেন। বইটি নবাব সলিমুল্লাহ'র বর্নিল জীবন,বঙ্গভঙ্গ পরিবর্তী রাজনৈতিক পরিবর্তন,সন্ত্রাসবাদ,সাম্প্রদায়িকতা,নারী শিক্ষায় তাঁর অবদান, হিন্দু-মুসলিম রাজনৈতিক পালাবদল,আন্তজার্তিক বিষয়ে নবাবের সচেতনতা, কর্মসূচি ইত্যাদি নানাদিক উঠে এসেছে। প্রখ্যাত কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ দীর্ঘদিন সময় ব্যয় করে নবাব সলিমুল্লাহ উপর ইতিহাসভিত্তিক অনবদ্য বইটি রচনা করেন।বইটি রচনা আরেকটা দায়বদ্ধতা ছিলো তাঁর পিতা অনুরোধ করেছিলেন। নবাব সলিমুল্লাহ ও তাঁর সময় সৈয়দ আবুল মকসুদ প্রচ্ছদ: মাসুক হেলাল প্রকাশক: প্রথমা প্রকাশন, ঢাকা প্রকাশকাল: ফেব্রুয়ারি ২০২১ ৩১২ পৃষ্ঠা দাম: ৫৫০ টাকা। #প্রথমাডটকম_কথাপ্রকাশ_বই_রিভিউ_প্রতিযোগিতা