প্রিয় এই পৃথিবী ছেড়ে (৪র্থ মুদ্রণ)



BDT320.00
BDT400.00
Save 20%

শিমু বলল, ‘এখানে অনেক ফুল নেই, তাতে কী। আকাশে অনেক তারা আছে। পৃথিবীর চেয়ে এখানে তারা দেখা যায় অনেক বেশি, অনেক স্পষ্ট। আমরা আকাশের তারা দিয়েই বাসর সাজাব। আমাদের দেশের এক কবি গান লিখেছিলেন—মোর প্রিয়া হবে এসো রানী, দেব খোঁপায় তারার ফুল। তুমিও আমাকে তারার ফুল এনে দিয়েছ। ওই যে দেখো, কাচের জানালার ওপারে মঙ্গলের রাতের আকাশ। কত তারা। কত তারা।’

ক্রিস বলল, ‘আর ওই যে মঙ্গলের দুটো চাঁদ।’ 

Quantity


  • Security policy (edit with Customer reassurance module) Security policy (edit with Customer reassurance module)
  • Delivery policy (edit with Customer reassurance module) Delivery policy (edit with Customer reassurance module)
  • Return policy (edit with Customer reassurance module) Return policy (edit with Customer reassurance module)

চারজন মানুষ মঙ্গল গ্রহে যাচ্ছে। একমুখী যাত্রা। যাওয়া যাবে কিন্তু ফেরা যাবে না। সেই দলে রয়েছে একজন বাংলাদেশি নারী, নাম সাবিনা আক্তার শিমু। মঙ্গলে অক্সিজেন নেই, পানি পাওয়া কঠিন, তেজস্ক্রিয় রশ্মির ভয় আছে। গাছপালা নেই। বৃষ্টি নেই। যাত্রাপথও সহজ নয়। ২৭০ দিন লাগবে শুধু যেতেই। সেখানে গিয়ে এই অভিযাত্রীরা থাকবে, এরপর ২৬ মাস পরে যাবে আরও চারজন। এভাবে মঙ্গলে গড়ে উঠবে মানববসতি। এক হাজার বছর পর মঙ্গল হয়ে উঠবে সুজলা-সুফলা।

সাবিনা আক্তার শিমু মঙ্গলে যাত্রার আগে ঢাকায় এসে দেখা করল মা-বাবার সঙ্গে। ফিরে গিয়ে তারা রওনা হলো ‘মার্স হোপ ১’ নামের নভোযানে। বিপৎসংকুল শ্বাসরুদ্ধকর সেই অভিযাত্রায় অজানা শঙ্কার সঙ্গে আছে প্রেম, ভালোবাসা, হাসি-কান্না, ঈর্ষা-দ্বেষ। প্রিয় পাঠক, সাবিনা আক্তার শিমু ও আরও তিন অভিযাত্রীর সঙ্গে আপনিও চলুন প্রিয় এই পৃথিবী ছেড়ে। 

Reviews

No customer reviews for the moment.